হোম ফিচার দেশে বাড়ছে আত্মহত্যা, সমাধান কোথায়?

দেশে বাড়ছে আত্মহত্যা, সমাধান কোথায়?

প্রতিবেদক Juboraj Faisal
0 মন্তব্য

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক গবেষণায় দেখা গেছে, গত ৫০ বছরে বিশ্বজুড়ে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে আত্মহত্যার হার ৬০ শতাংশ বেড়েছে। আর বাংলাদেশে আত্মহত্যার প্রবণতা ২.০৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

দেশে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৩০ জন মানুষ আত্মহত্যা করছে। এছাড়া প্রতি বছরই এই সংখ্যা বাড়ছে। বর্তমান সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে এই প্রবণতা বাড়ছে।

বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি গবেষণায় জানা যায়, গত ৬ বছরে প্রায় ৭০ হাজার মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন। সামাজিক সংগঠন আঁচল ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে আত্মহত্যা ৪৪.৩৬ শতাংশ বেড়েছে। এর মধ্যে নারীর ক্ষেত্রে ৫৭ শতাংশ এবং পুরুষের ক্ষেত্রে ৪৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

করোনাভাইরাস অতিমারির সময় ২০২১ সালে সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০১ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। এদের মধ্যে ৬৫ জন পুরুষ এবং ৩৬ জন মহিলা।

মনোবিজ্ঞানীরা মনে করছেন, মহামারির মধ্যে সামাজিক, আর্থিক ও পারিবারিক চাপে হতাশা বেড়ে যাওয়া আত্মহত্যার কারণ হতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা আরও বলেন, আত্মহত্যার প্রবণতা একটি মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা। মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসার মাধ্যমে আত্মহত্যার ঘটনা কমিয়ে আনা সম্ভব। এর জন্য প্রয়োজন ব্যাপক জনসচেতনতা ও প্রয়োজনীয় কাউন্সেলিং। এই ক্ষেত্রে পরিবারকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ‍পালন করতে হবে।

বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি গবেষণায় জানা যায়, গত ৬ বছরে প্রায় ৭০ হাজার মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তথ্য মতে, ২০১৬ সালে সারাদেশে আত্মহত্যা করেছেন ১০ হাজার ৭৪৯ জন। জানা গেছে ২০১৭ সালে সারা বাংলাদেশে আত্মহত্যা করেছেন ১০ হাজার ২৫৬ জন। ২০১৮ সালে তা বেড়ে হয়েছে ১১ হাজার।

আর ২০১৯ সালে দেশে ১০ হাজারের বেশি মানুষ আত্মহত্যা করেছেন। এই সংখ্যা ২০২০ সালে আরও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৪৩৬ জনে।

এদিকে, ২০২১ সালের আত্মহত্যার সঠিক পরিসংখ্যান ডিএমপি। তবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য মতে, ২০২১ সালে ১১ হাজারের বেশি মানুষ আত্মহত্যা করেছেন।

লেখক: সাহেলা শারমিন দিনা

সম্পর্কিত আরও খবর

আপনার মতামত দিন