হোম কৃষি বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদ্ভিদের সন্ধান

বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদ্ভিদের সন্ধান

প্রতিবেদক Juboraj Faisal
0 মন্তব্য

বিজ্ঞানীরা অস্ট্রেলিয়া উপকূলে ওই সি-গ্রাস বা সামুদ্রিক একটি ঘাসের সন্ধান পেয়েছেন যা বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদ্ভিদ। যার আকার যু্ক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটন নগরীর তিনগুণ বড়।

ইউনিভার্সিটি অব ওয়ের্স্টান অস্ট্রেলিয়ার গবেষকদের দাবি, দেশটির পশ্চিম উপকূলে পানির নিচে যে বিশাল তৃণভূমি রয়েছে, তা আদতে একটি উদ্ভিদ।

বিজ্ঞানীরা জেনেটিক পরীক্ষা করে জানতে পেরেছেন, একটি মাত্র বীজ থেকে সাড়ে ৪ হাজার বছর ধরে বিশাল ওই তৃণভূমি তৈরি হয়েছে। আর প্রায় ২০০ বর্গকিলোমিটার (৭৭ বর্গ মাইল) এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে আছে।

অস্ট্রেলিয়ার পার্থ শার্কবেকের গবেষকরা অনেকটা হঠাৎ করেই ওই সামুদ্রিক ঘাসের সন্ধান পান। বিজ্ঞানীরা সেটির জিনগত বৈশিষ্ট্য জানার চেষ্টা করেন।

সামুদ্রিক ওই ঘাসটি ‘রিবন উইড’ নামে পরিচিত। অস্ট্রেলিয়া উপকূল জুড়ে এটি হরহামেশাই দেখতে পাওয়া যায়। জিনগত বৈশিষ্ট্য পরীক্ষার জন্য উপসাগরের বিভিন্ন স্থান থেকে অঙ্কুর সংগ্রহ করেন এবং প্রতিটি নমুনা থেকে একটি করে ‘ফিঙ্গার প্রিন্ট’ তৈরি করতে ১৮ হাজার জেনেটিক মার্কার পরীক্ষা করেন।

এই গবেষণাপত্রের প্রধান লেখক জেইন এজলো বলেন, ‘পরীক্ষার যে ফল পেলাম তাতে আমাদের হুঁশ উড়ে গিয়েছিল। সেখানে পুরোটাই মাত্র একটি উদ্ভিদ। এটাই! মাত্র একটি উদ্ভিদ শার্ক বে’র ১৮০ কিলোমিটারের বেশি এলাকাজুড়ে ছড়িয়েছে এবং এটিকে এখন পর্যন্ত জানা মতে বিশ্বের সর্ববৃহৎ উদ্ভিদে পরিণত করেছে।’

গবেষক দলের আরেকজন সদস্যা এলিজাবেথ সিনক্লেয়ার জানান, ‘এটি সত্যিই টেকসই বলে মনে হচ্ছে। উচ্চ তাপমাত্রা এবং লবণাক্ততার পাশাপাশি তীব্র আলোর সম্মুখীন হয়েও এটি টিকে আছে। অধিকাংশ উদ্ভিদের জন্য এমন পরিবেশে টিকে থাকা কঠিন।’

ডেস্ক রিপোর্ট: ফাহিম ফয়সাল

সম্পর্কিত আরও খবর

আপনার মতামত দিন